Breaking News

পুলওয়ামা-কাণ্ডের সময়ের ISI প্রধানকেই এবার পাক সেনাপ্রধানের দায়িত্ব

#পাকিস্তান: প্রতিবেশী দেশে সেনার শীর্ষস্তরে বড়সড় রদবদল। ঘোষিত হল পাকিস্তানের নতুন সেনাপ্রধানের নাম। বৃহস্পতিবার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আসিম মুনিরকে দেশের সেনাপ্রধান হিসাবে ঘোষণা করলেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। পাশাপাশি, পাকিস্তানের স্টাফ কমিটির যুগ্ম প্রধান হিসাবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে লেফটেন্যান্ট জেনারেল শাহির শামশাদ মির্জাকে।

বৃহস্পতিবার ইসলামাবাদে সে দেশের মন্ত্রিসভার বৈঠকের পরেই দেশের সেনাপ্রধান হিসাবে আসিমের নাম ঘোষণা করেন শাহবাজ। তার কিছুক্ষণ পরেই এই খবর টুইট করে জানান, নওয়াজ-কন্যা তথা পাকমন্ত্রী মারিয়ম।

পুলওয়ামা কাণ্ডের সময়ে পাক গোয়েন্দা সংস্থা ISI-এর প্রধান ছিলেন এই আসিম মুনির। তাছাড়া, এই আসিম বিদায়ী সেনাপ্রধান জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়ারও অত্যন্ত প্রিয়পাত্র।

আসিম মুনির এবং শামশাদ মির্জা উভয়কেই এই ঘোষণার পরে ফোর স্টার জেনারেল মর্যাদায় উন্নীত করেছে সে দেশের সরকার। পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী খোয়াজা আসিফ জানিয়েছেন, প্রোটোকল মেনে আসিম ও শামশাদের নাম ইতিমধ্যেই প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভির কাছে পাঠানো হয়েছে। নতুন সেনাপ্রধান নিয়োগে মেনে চলা হচ্ছে যাবতীয় নিয়মনীতি।

আরও পড়ুন: অরণ্যের অধিকার ‘ওদেরই’, আদিবাসী উন্নয়নে বিধানসভায় বিরাট ঘোষণা মমতার!

আরও পড়ুন: বাংলা থেকে ছুটবে পাঁচ-পাঁচটি বন্দে ভারত এক্সপ্রেস! বিখ্যাত এই ট্রেন যাবে কোথায় কোথায়? দেখে নিন রুট!

তবে তড়িঘড়ি হঠাৎ কেন পাক সেনাপ্রধানের পদে এই রদবদল? পাকিস্তান জুড়ে জোর গুঞ্জন, এর পিছনে দায়ী পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। আগামী ২৬ নভেম্বর রাওয়ালপিন্ডিতে একটি বড় জমায়েতের ডাক দিয়েছেন ইমরান। তার ঠিক দুদিন আগেই ইমরান বিরোধী হিসাবে সুপরিচিত আসিমকে দেওয়া হল সেনাপ্রধানের দায়িত্ব। স্বভাবতই, যার জেরে জল্পনার ঝড় উঠছে সে দেশের রাজনৈতিক মহলে।

পাক সেনার বিরুদ্ধে বারবার দেশের শাসন ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রণ করার অভিযোগ এনেছেন ইমরান। তাঁর অভিযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন বিদায়ী সেনাপ্রধান বাজওয়া। বাজওয়ার বিরুদ্ধে তাঁর সরকার ফেলার চক্রান্ত করার অভিযোগ এনেছিলেন ইমরান। যদিও সেই অভিযোগকে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়েছিলেন বাজওয়া।

এবারও, ইমরানের মুখোমুখি তাঁর আরেক অপছন্দের মানুষ। আসিম মুনির। ২০১৭ সালে ভারতে যখন পুলওয়ামা বিস্ফোরণ হয়, সেই সময় ISI-এর প্রধানের দায়িত্বে ছিলেন আসিম। কিন্তু তাঁর সেই পদ দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। কারণ, এরপরেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর পদে আসীন হন ইমরান। তাঁরই নির্দেশে ISI প্রধানের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তাঁকে। সেই থেকে সম্ভবত বিরোধ শুরু ইমরান-আসিমের।

Published by:Satabdi Adhikary

First published:

Tags: Pakistan


Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *