Breaking News

স্মার্টফোনে কার্সার! ফোন সাজান মনের মতো করে, শিখে নিন গোপন কায়দা!

#নয়াদিল্লি: বর্তমানে স্মার্টফোন আমাদের সকলের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে উঠেছে। এখন বিভিন্ন ধরনের কাজ স্মার্টফোনের মাধ্যমেই করা হয়। স্মার্টফোন সঠিকভাবে ব্যবহার করার জন্য বিভিন্ন ধরনের অ্যাপের প্রয়োজন হয়। এর জন্য প্লে-স্টোর থেকে সঠিক অ্যাপ ডাউনলোড করার প্রয়োজন।

এমন অনেক অ্যাপ রয়েছে যা স্মার্টফোনকে আরও উন্নত ও আধুনিক করে তুলতে পারে। আজকে আমরা সেই সমস্ত অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পর্কে জানাব।

আরও পড়ুন- ৪৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, দুর্দান্ত ব্যাটারি লাইফ, আসছে পোকো-র নতুন স্মার্টফোন

Lynket Browser –

সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে এখন অনেকেই বিভিন্ন ধরনের খবর ফোনেই পড়ে থাকেন। বিভিন্ন ধরনের খবর জানার জন্য অনেকেই ফোনে অনেক কিছু স্টোর করে ফেলেন। কিন্তু খবর পড়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইট চেক না করে, এই অ্যাপ ডাউনলোড করা যেতে পারে। এর মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের খবর জানা যেতে পারে।

Popup Widget 3 –

অ্যান্ড্রয়েড ফোনে খুবই কম সংখ্যায় উইজেট থাকে। আবার খুব বেশি পরিমাণে উইজেট থাকলে ফোনের হোমস্ক্রিন দেখতে খারাপ লাগে। এর ফলে এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অ্যাপ। কারণ এটি বিভিন্ন ধরনের উইজেটকে হোমস্ক্রিনে ১×১ আইকনে পরিবর্তন করে।

Notepin –

এই অ্যাপের মাধ্যমে নোট তৈরি করে অন্য নোটিফিকেশন প্যানেলে রিমাইন্ডারের মাধ্যমে পিন করা যেতে পারে। সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল এই ধরনের নোট আলাদা আলাদা কল থেকে বানানো সম্ভব।

IFTTT –

এই অ্যাপের মাধ্যমে নিজেদের স্মার্টফোন আরও স্মার্ট বানানো সম্ভব। এটি অ্যান্ড্রয়েড ফোনকে সেন্ট্রাল ওয়েভে পরিণত করে। এর মাধ্যমে দুটি ইন্টারনেট সার্ভিস অথবা ডিভাইসকে নিজেদের মধ্যে কানেক্ট করা যেতে পারে। এর মাধ্যমে ঘরের স্মার্ট ডিভাইস খুব সহজেই কন্ট্রোল করা সম্ভব।

Quick Cursor –

অনেক সময় এক হাতে ফোন ব্যবহার করার প্রয়োজন হয়। এই কাজ করা খুব সহজ নয়। এর জন্য এই অ্যাপের ব্যবহার করা যেতে পারে। এটি স্কিনে একটি কার্সার রেখে দেয়, যা আঙুল দিয়ে খুব সহজে কন্ট্রোল করা সম্ভব।

MightlyText –

WhatsApp ওয়েব খুবই সহজে ব্যবহার করা সম্ভব। কিন্তু এখনও অনেকে এসএমএস করে থাকেন, তাঁদের জন্য এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এর মাধ্যমে কম্পিউটার থেকেও এসএমএস করা সম্ভব।

Universal Copy –

কপি-পেস্টের যুগে অনেক অ্যাপেই এই ধরনের কাজ করা অসম্ভব। বেশ কিছু ওয়েবসাইট থেকে কনটেন্ট কপি-পেস্ট করা যায় না।। কিন্তু এই অ্যাপের মাধ্যমে যে কোনও জায়গা থেকে যে কোনও কিছু কপি করা সম্ভব। এর মাধ্যমে ফটোর উপরে লেখা টেক্সটও কপি করা সম্ভব।

Sesame –

এটি একটি ইউনিভার্সাল সার্চ এবং শর্টকাট মেকার অ্যাপ। এর মাধ্যমে ফোন থেকে যে কোনও সময় খুব সহজেই সার্চ করা সম্ভব। এই অ্যাপের মাধ্যমে একটি ক্লিকে যে কোনও শর্টকাট ক্রিয়েট করা সম্ভব।

Niagra Launcher –

পুরো অ্যান্ড্রয়েড ফোন কাস্টমাইজ করার সবথেকে ভাল উপায় হল একটি নতুন লঞ্চার ইন্সটল করে নেওয়া। এই অ্যাপের মাধ্যমে নিজেদের ফোনের একটি নতুন ক্লিন লুক দেওয়া সম্ভব।

Super Status Bar –

ইউজাররা নিজেদের অ্যান্ড্রয়েড ফোন নিজেদের সুবিধা অনুযায়ী আপডেট এবং কাস্টমাইজ করে থাকেন। কিন্তু অনেকেই নিজেদের স্টেটাস বারের কথা ভুলে যায়। এই অ্যাপের মাধ্যমে ফোনের ব্রাইটনেস এবং ভলিউমের মতো বিভিন্ন জিনিস ঠিক করা সম্ভব। এর মাধ্যমে ব্যাটারি লাইফও মনিটর করা সম্ভব। ফোনের লুক চেঞ্জ করার জন্য এটি সবথেকে ভাল অ্যাপ।

Published by:Suman Majumder

First published:

Tags: Android apps, Android smartphone


Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *